Home > ধর্ম ও জীবন > পুঠিয়াতে ঐতিহাসিক শিব পূজা অনুষ্ঠিত

পুঠিয়াতে ঐতিহাসিক শিব পূজা অনুষ্ঠিত

ডেস্ক রিপোর্টার

মো: মোহাইমেনউল (স্বপন)

রাজশাহী জেলার পুঠিয়া থানায় প্রতি বছরের মতো এবারো  ঐতিহাসিত শিব পুজা অনুষ্ঠিত হয়। ঈশ্বরে যাঁরা বিশ্বাস করেন, তাঁরা মনে করেন, ঈশ্বরকে যদি যথাযথভাবে তুষ্ট করা যায় তাহলে অভীষ্ট ফললাভ করা সম্ভব। সেই কারণে পূজার্চনার উপযুক্ত সময় এবং উপচারের উপর গুরুত্ব দেওয়া হয়। হিন্দু বিশ্বাস অনুসারে, শ্রাবণ মাস শিবের পূজার পক্ষে আদর্শ। কারণ পৌরাণিক কাহিনিতে বলা হয়েছে, সমুদ্র মন্থনের ফলে উত্থিত বিষ এই মাসেই পান করেছিলেন শিব।

 

ফলে আস্তিকদের বিশ্বাস, শ্রাবণ সোমবারে যদি শিবের রুদ্রাভিষেক পূজা করা যায়, তাহলে ভক্তের জীবনে তার বিশেষ সুফল ফলে। কীরকম? আসুন, জেনে নিই—

  • শ্রাবণ মাসে ভক্তি সহকারে শিবের পূজা করলে গ্রহদোষ, বিশেষত শনির দোষ থেকে মুক্তি লাভ করা যায়।
  • শ্রাবণ মাসে শিব পূজার ফলে ভক্তের স্বাস্থ্যের লক্ষণীয় উন্নতি ঘটে। গুরুতর রোগ থেকে তিনি দূরত্ব রক্ষা করে চলতে সক্ষম হন।
  • শিবকে হিন্দু মতে আদর্শ পুরুষ বলে জ্ঞান করা হয়। ফলে শ্রাবণ মাসে যদি অবিবাহিত মহিলারা শিবের পূজা করেন, তাহলে শিবের মতো আদর্শ কোনও পুরুষকেই তাঁরা স্বামী হিসেবে লাভ করেন বলে মনে করা হয়।
  • শ্রাবণ মাসে শিব পূজার ফলে মোক্ষলাভ বা আত্মার ম‌ুক্তি লাভ সহজতর হয় বলে মনে করা হয়।
  • মধু, ঘি বা আখের মতো দ্রব্য সহযোগে যদি শ্রাবণ মাসে শিব পূজা করা যায়, তাহলে অর্থ ও সমৃদ্ধি লাভ করার সম্ভাবনা থাকে ভক্তের।
  • মহামৃত্যুঞ্জয় মন্ত্রের মতো শিবের মন্ত্র জপ করার ফলে বিপদ ও অকালমৃত্যু থেকে ভক্ত রক্ষা পেতে পারেন বলে বিশ্বাস করা হয়।

 

অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন অ্যাড: সুশান্ত কুমার ঘোষ, সহ সভাপতিত্ব করেন শ্রী বিজন কুমার দত্ত, সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন শ্রী চঞ্চল কুমার চৌধুরী, সহ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন পল্লব কুমার সেনগুপ্ত। শিব মন্দিরের ভেতরে সার্বিক দাযিরত্ব ছিলেন পিজুষ কুমুর দাস, গৌতম কুমার সরকার, সুমন কুমার সরকার, মিঠুন কুন্ডু, মিলন করকার, সুদেব সরকার, সুজিত দাস, অসিত হালদার ও গোবিন্দ।

আপনার ওয়েবসাইট তৈরি করতে ক্লিক করুন........
Ads by জনতার বাণী

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*

Translate »
শিরোনামঃ